সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ০৬:৪৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
Situs Togel yang Menggemparkan: Prediksi yang Membawa Anda ke Kemenangan Tak Terduga! ডোমারে ৭ মাসের অন্তস্বতা স্কুলছাত্রী ধর্ষন যুবক গ্রেফতার। জলঢাকায় প্রতিমা তৈরিতে ব্যস্ত মৃৎশিল্গীরা। পাঁচবিবি ছমিরণনেছা মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় নামেই মডেল ।। গাজীপুরে আজকের দর্পণ পত্রিকার প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত ডোমারে উপজেলা পরিষদ হলরুমে চেক বিতরণ। টঙ্গী পূর্ব থানার বিশেষ অভিযানে ৬ কেজি গাঁজাসহ সহ গ্রেফতার ১ জলঢাকায় কাঁচাবাজার নিয়ন্ত্রণে ইউএনও’র মনিটরিং ৪ব্যবসায়ীর ৮০হাজার টাকা জরিমানা। গাইবান্ধায় অন্যের স্ত্রীকে নিয়ে পালালেন গণমাধ্যম কর্মী গাছা থানার বিশেষ অভিযানে ৭৮ পিছ ইয়াবাসহ ২ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার। গাজীপুরে মাদ্রাসা শিক্ষক কতৃক ৯ম শ্রেণীর ছাত্রীকে বিয়ের প্রলোভনে  ধর্ষণের অভিযোগে শিক্ষক আটক- অভিযোগ তুলে নিতে চাপ প্রয়োগ গাউক চেয়ারম্যান আজমত উল্লাকে গাজীপুর জেলা তরুণ সংঘের পক্ষ থেকে গণসংর্বধনা দেওয়া হয়েছে। সেপ্টেম্বরের মধ্যেই ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধন করা হবে জামালপুর সদর উপজেলা পরিদর্শনে বিভাগীয় কমিশনার শফিকুর রেজা বিশ্বাস সিরাজগঞ্জের তাড়াশ পৌর নির্বাচনে প্রার্থীদের সাথে জেলা প্রশাসকের মতবিনিময় সন্দ্বীপে মাধ্যমিক পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ প্রধান শিক্ষক নির্বাচিত হলেন মাষ্টার দেলোয়ার হোসেন ভাঙ্গায় ছোট ভাইয়ের হাতে বড় ভাই খুন চাঁদাবাজীতে অতিষ্ঠ সন্দ্বীপ পৌরসভার ৯ নং ওয়ার্ডের জেলেরা হাফুস’র ব্যবস্থাপনায় করোনার টিকা প্রদান কার্যক্রম উদ্বোধন বিটিআরসি’র হ্যাম রেডিও লাইসেন্স প্রাপ্তি পরীক্ষায় দিদারুল ইকবাল উত্তীর্ণ হওয়ায় চট্টগ্রামে সংবর্ধনা
বিস্তারিত জানতে এই লিংকে ক্লিক করুন
https://www.facebook.com/TrustFashionbdpage?mibextid=ZbWKwL
google.com, pub-4295537314387688, DIRECT, f08c47fec0942fa0
google.com, pub-4295537314387688, DIRECT, f08c47fec0942fa0

নির্বাচনী মাঠে বিএনপির অনুপস্থিতি; আওয়ামী লীগে গৃহবিবাদ

  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ৭ এপ্রিল, ২০২৩, ৭.৫০ অপরাহ্ণ
  • ৫১ জন দেখেছে
গাজীপুর সিটি নির্বাচনে বিজয়ে আত্মপ্রত্যয়ী জাপা

মো. সোহেল মিয়া ( গাজীপুর ) থেকে:

গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের আসন্ন সাধারণ নির্বাচনের ভোটযুদ্ধে বিএনপি-জামাত জোট বিরত থাকার সিদ্ধান্ত নেয়ায় জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থীর বিজয়ের পথ সুগম হয়েছে বলে মনে করছেন সাধারণ ভোটাররা। গাজীপুরে গৃহবিবাদে জর্জরিত আওয়ামী লীগও জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী সাবেক স্বাস্থ্য সচিব এম এম নিয়াজ উদ্দিনকে প্রধান প্রতিদ্বন্ধী মনে করছে। এ অবস্থায় অবাধ, সুষ্ঠু তথা ভোটের অনুকূল পরিবেশ পেলে জাতীয় পার্টির বিজয় সুনিশ্চিত বলে দলটির নেতাকর্মীরা মনে করছেন। আসন্ন সিটি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে জাতীয় পার্টির এক সময়ের ঘাঁটি টঙ্গী তথা গাজীপুর-২ আসনকে পুনরুদ্ধারেরও আশা করছেন দলটির তৃণমূল নেতাকর্মীরা। যোগ্যতার দিক থেকে অন্যান্য সম্ভাব্য প্রার্থীর চেয়ে জাপা মনোনীত প্রার্থী এগিয়ে থাকায় বিজয়ের ব্যাপারে দলটির নেতাকর্মীদের মধ্যে অনেকটা আত্মপ্রত্যয় লক্ষ্য করা গেছে।
এদিকে জাতীয় পার্টির প্রার্থীতা নিশ্চিত হলেও এখনো মনোনয়ন প্রতিযেগিতার দৌড়ঝাঁপে রয়েছেন আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থীরা। এবার কে হচ্ছেন আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থী তা নিয়ে নগরজুড়ে চলছে নানা জল্পনা কল্পনা। সম্ভাব্য প্রার্থীদের মধ্যে গাসিক প্রথম নির্বাচনে আওয়ামী লীগের পরাজিত মেয়রপ্রার্থী অ্যাডভোকেট মো. আজমত উল্লাহ খান, গাসিকের বরখাস্তকৃত মেয়র মো. জাহাঙ্গীর আলম, বর্তমান ভারপ্রাপ্ত মেয়র আসাদুর রহমান কিরণের নাম এতো দিন ব্যাপকভাবে উচ্চারিত হলেও এখন নতুন চমকের কথা শোনা যাচ্ছে। কে হচ্ছেন সেই নতুন চমক তা নিয়েও বর্তমানে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলো আলোচনায় সরগরম হয়ে উঠছে। কেউ বলছেন কাঙ্খিত সেই নতুন চমক মহানগর যুবলীগের সভাপতি কামরুল আহসান সরকার রাসেল, আবার কেউ কেউ বলছেন সেই নতুন চমক হতে পারেন গাজীপুর-২ আসনের এমপি যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেলের চাচা মতিউর রহমান মতি। এবার মেয়র পদে আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য নতুন মুখ নির্বাচনের কারণ নিয়েও চলছে চুলচেরা বিশ্লেষণ। কেউ বলছেন, মহান মুক্তিযুদ্ধ ও জাতির জনককে নিয়ে অবমাননাকর মন্তব্য করে দল থেকে প্রথমে বহিষ্কৃত হয়ে আবার সাধারণ ক্ষমার আওতায় দলের প্রাথমিক সদস্য পদ ফিরে পেলেও দুর্নীতি-অনিয়মের অভিযোগ তদন্তাধীনে থাকায় জাহাঙ্গীর আলম এবার দলের মনোনয়ন থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। অপরদিকে নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট আজমত উল্লাহ খান জনপ্রিয়তার বিশ্লেষণে পিছিয়ে থাকায় এবং দলে নিজস্ব কর্মী বাহিনী না থাকায় তিনিও মনোনয়ন প্রতিযোগিতায় পিছিয়ে রয়েছেন। অপর সম্ভাব্য প্রার্থী অ্যাডভোকেট আজমত উল্লাহ খানের এক সময়ের ঘনিষ্ঠ শিষ্য গাসিক ভারপ্রাপ্ত মেয়র আসাদুর রহমান কিরণ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেলের সমর্থন নিয়ে এখনো পর্যন্ত মনোনয়ন প্রতিযোগিতায় এগিয়ে রয়েছেন বলে শোনা গেলেও নতুন চমক হিসেবে প্রতিমন্ত্রীর চাচা মতিউর রহমান মতির নাম যুক্ত হওয়ায় দ্বিধা দ্বন্দ্বে পড়েছেন তাদের সমর্থকেরা। তবে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থীতার ব্যাপারে দলটির দায়িত্বশীল নেতারা এখনো মুখ খুলছেন না।
এদিকে এরই মধ্যে তিন জন প্রার্থী মেয়র পদে নির্বাচন করার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিয়েছেন। তাদের মধ্যে রয়েছেন নগরীর গাছা অঞ্চলের ৩৫ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল্লাহ আল মামুন মন্ডল. আরএসবি গ্রুপের চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা মো. মেজবাহ্ উদ্দিন সরকার রুবেল ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ (চরমোনাই) এর গাজীপুর মহানগর আমীর মাওলানা গাজী আতাউর রহমান। এছাড়া মহানগর যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মো. সাইফুল ইসলামও বহু আগে থেকেই মেয়র পদের প্রার্থী হিসেবে ব্যাপক প্রচার প্রচারণা চালাচ্ছেন। অপরদিকে স্বতন্ত্র মেয়রপ্রার্থী হিসেবে টঙ্গীর প্রভাবশালী সরকার পরিবার থেকে সরকার শাহ নূর ইসলাম রনি বিএনপি, জামাত ও সমমনা দলগুলোর সমর্থন নিয়ে এবার প্রার্থী হতে পারেন বলেও শোনা যাচ্ছে। তিনিও আরো আগে থেকেই ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে ওঠান বৈঠন করে আসছেন।
জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী এম এম নিয়াজ উদ্দিন বলেন, জনগণ আমাকে সেবা করার সুযোগ দিলে গাজীপুর সিটিকে একটি পরিকল্পিত উন্নয়নের আওতায় আনা হবে। শুধু অবকাঠামো উন্নয়ন নয়। নগরীর প্রকৃত উন্নয়ন করতে হলে শিক্ষা, স্বাস্থ্য, স্বাস্থ্যসম্মত নিরাপদ খাদ্য, পানি, বিদ্যুৎসহ সবখাতে কাক্সিক্ষত উন্নয়ন ঘটাতে হবে। নির্দিষ্ট জোনে একটি শিল্পবান্ধব পরিবেশ নিশ্চিত করণসহ নগরীর সার্বিক উন্নয়নে সকলকে নিয়ে এক সাথে কাজ করবো। জনগণ পরিবর্তন চায়, আমি জনগণের সেই কাক্সিক্ষত পরিবর্তন ও প্রত্যাশা পূরণে নিরলসভাবে কাজ করে যাব, বুদ্ধি ভিত্তিক, জ্ঞান ভিত্তিক একটি সমাজ প্রতিষ্ঠা করবো। তিনি বলেন, আমি স্বাস্থ্য সচিব থাকাকালে গাজীপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, টঙ্গীতে আড়াইশ’ শয্যার আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতাল, ২টি নার্সিং কলেজ, ১টি ইনস্টিটিউট অব হেলথ টেনোলজি, ২টি ১০ বেডের হাসপাতাল, ১টি ২০ বেডের হাসপাতাল, ২টি টেক্সটাইল কলেজ, ৩টি উচ্চ বিদ্যালয়, একাধিক মাদ্রাসা এতিমখানা, প্রাইমারি স্কুল প্রতিষ্ঠা করেছি। জেলায় আমার প্রতিষ্ঠিত ৬২টি প্রাইমারি স্কুলে ৩১০টি নতুন শিক্ষকের পদ সৃষ্টি হয়েছে।
উল্লেখ্য, গাজীপুর সিটি করপোরেশনের সর্বশেষ ভোট হয়েছে ২০১৮ সালের ২৭ জুন। নির্বাচিত পরিষদের প্রথম সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে ওই বছরের ১১ সেপ্টেম্বর। সেহিসেবে আগামী ১১ সেপ্টেম্বর গাজীপুর সিটি করপোরেশনের বর্তমান পরিষদের মেয়াদ শেষ হচ্ছে। ফলে নির্বাচনী আইন অনুযায়ী পরবর্তী সাধারণ নির্বাচনের সময় গণনা শুরু হয় গত ১১ মার্চ থেকে। এ বছরের ১০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে ইসির ভোট গ্রহনের বাধ্যবাধকতা রয়েছে।

Comments

comments

Please Share This Post in Your Social Media

এ ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ
Close
© 2018-2022, daynikekusherbani.com- All rights reserved.অত্র সাইটের কোন - নিউজ , ভিডিও ,অডিও , অনুমতি ছাড়া কপি/ অন্য কোথাও ব্যবহার করা দন্ডনীয় অপরাধ।
Design by Raytahost.com
Raytahost Facebook Sharing Powered By : Raytahost.com